মূলপাতা বই আসান ফেকাহ - ২য় খন্ড

দীর্ঘদিন থেকে ইলমে ফেকাহের উপর এমন একটি গ্রন্থের প্রয়োজন গভীরভাবে অনুভূত হচ্ছিল যা হবে সংক্ষিপ্ত অথচ প্রত্যেক মুসলিমের জীবনের সর্ব দিকের প্রয়োজন মেটাবে। আল্লাহর শোকর মাওলানা মুহাম্মদ ইউসুফ ইসলাহী কর্তৃক উর্দু ভাষায় রচিত আসান ফেকাহ আমাদের সে প্রয়োজন পূর্ণ করেছে।

বিশিষ্ট ইসলামী চিন্তাবিদ ও সাহিত্যিক জনাব আব্বাস আলী খান কর্তৃক ভাষান্তর হওয়ায় বইটির অনুবাদ যথার্থ হয়েছে বলে আমরা মনে করি। এ খণ্ডে সাওম, যাকাত ও হজ্জ নামে তিনটি অধ্যায় রয়েছে।

এখানে উল্লেখযোগ্য যে, বর্তমানে মুসলিম বিশ্বে ইলমে ফিকাহের চারটি মত প্রচলিত রয়েছে, তাহলো হানাফী, মালেকী, শাফেয়ী ও হাম্বলী। এছাড়াও ভিন্ন একটি মতেরও অনুসারী রয়েছে যাঁরা উপরোক্ত চার মতের কারো অনুসরণ করেন না। তাঁরা সরাসরি কুরআন হাদীসের অনুসরণের পক্ষপাতী। তাঁরা সালাফী বা আহলে হাদীস নামে পরিচিত। উপরোক্ত সব মতই সঠিক। সব মতের ভিত্তিই কুরআন ও হাদীসের উপর প্রতিষ্ঠিত। সকলেরই প্রচেষ্টা ছিল কুরআন ও হাদীসের সার্বিক অনুসরণ। উপরোল্লিখিত মতপার্থক্যের কারণে একে অন্যের উপর দোষারোপ করা একে অন্যক দীন থেকে খারিজ মনে করে মুসলিম উম্মার ঐক্যে ফাটল সৃষ্টির প্রচেষ্টা কোনো মুখলেস হকপন্থীর কাজ হতে পারে না।

উপমহাদেশে সব মতের অনুসারীই রয়েছে। কিন্তু হানাফী মতের অনুসারীদের সংখ্যাই অধিক বিধায় মতপার্থক্য এড়িয়ে শুধুমাত্র হানাফী মতের উপর ভিত্তি করেই এ গ্রন্থ প্রণীত হয়েছে। যাতে করে সাধারণ মুসলমান দ্বিধাহীন চিত্তে ও পূর্ণ নিশ্চিন্ততার সাথে নিজস্ব মাযহাবের অনুসরণ করতে পারে। তবে প্রায় ক্ষেত্রে আহলে হাদীসের অভিমতও সন্নিবেশিত করা হয়েছে।

বিভিন্ন যুগে ওলামায়ে কেরাম কোনো কোনো মাসয়ালার ব্যাপারে ব্যাপক গবেষণার পর বিভিন্ন মতের সুপারিশ করেছেন এসব মতের যেটিকে সঠিক মনে করা হয়েছে তাও টিকায় উল্লেখ করা হয়েছে। যাতে করে যে চায় প্রশস্ত অন্তকরণে তার উপরও আমল করতে পারে। এছাড়া মাসয়ালা মাসায়েলের সাথে সাথে ইবাদাত ও আমলের ফযীলত ও গুরুত্ব হাদীসের আলোকে বর্ণিত হয়েছে যাতে ইবাদাতের প্রতি অন্তরে জযবা পয়দা হয়।

আমাদের সাফল্য পাঠকদেরই বিচার্য। মহান আল্লাহ আমাদেরকে তার দীনের পূর্ণ অনুসরণের তাওফীক দিন। আমীন।

গ্রন্থপঞ্জি
আহকামের ফযীলত ও হেকমত সংক্রান্ত আলোচনায় নিম্নলিখিত গ্রন্থাবলীর সাহায্য নেয়া হয়েছেঃ

১. তাফসীরে নাসাফী ২. তাফসীরে খাযেন ৩. তাফসীরে বায়যাবী ৪. তরজমানু কুরআন-মাওলানা আবুল কালাম আযাদ ৫. তাফহীমুল কুরআন-মাওলানা সাইয়েদ আবুল আলা মওদূদী (র) ৬. তরজমা ও তাফসীর-মাওলানা শিব্বির আহমদ উসমানী ৭. সিহাহ সিত্তা ৮. মুয়াত্তা-ইমাম মালেক (র) ৯. রিয়াদুস সালেহীন ১০. আল-আদাবুল মুফরেদ ১১. হিসনে হাসীন ১২. মিশকাত ১৩. এহইয়াও উলুমদ্দীন ১৪. কাশফুল মাহজুব।

মাসায়েল ও আহকামগুলো ইজতেহাদী আলোচনা ছাড়া নিম্নোক্ত গ্রন্থাবলী থেকে উদ্বৃত করা হয়েছে এবং শুধু মাত্র সর্বসম্মত মতে সাধারণ্যে প্রযোজ্য মাসয়ালাগুলোই গ্রহণ করা হয়েছে।

১. হেদায়া ২. আইনুল হেদায়া-শরহে হেদায়া ৩. ফাতহুল কাদীর ৪. কুদুরী ৫. শরহে বেকায়া ৬. নূরুল ইয়াহ ৭. ফিকহুস সুন্নাহ ৮. ইলমুল ফিকাহ ৯. তালীমুল ইসলাম ১০. ইসলামী তালীম ১১. আলাতে জাদীদাহ কে শরয়ী আহকাম-মুফতী মুহাম্মদ শফী (র) ১২. রাসায়েল ও মাসায়েল-মাওলানা সাইয়েদ আবুল আলা মওদুদী (র) ১৩. বেহেশতি জেওর ১৪. ফতোয়া-দারুল উলুম দেওবন্দ ইত্যাদি।


পিডিএফ লোড হতে একটু সময় লাগতে পারে। নতুন উইন্ডোতে খুলতে এখানে ক্লিক করুন।




দুঃখিত, এই বইটির কোন অডিও যুক্ত করা হয়নি